Subscribe Us

বিখ্যাত বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ ও রচয়িতা

বিখ্যাত বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ ও রচয়িতা || বিখ্যাত বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ || বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ || BANGLASAHITTO ||


বিখ্যাত বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ ও রচয়িতা:


            বাংলা ভাষার প্রথম ব্যাকরণ রচনা করেন মনোত্রল দ্য আস্সুম্পসাঁও। তাঁর রচিত ব্যাকরণ গ্রন্থটির নাম - "Vocabulario em Bengalla a portugueze dividido em duas Partes". গ্রন্থটির ভাষা পর্তুগিজ। ঢাকার ভাওয়ালে থাকাকালীন ১৭৩৪ খ্রিষ্টাব্দে তিনি এই গ্রন্থটি রচনা করেন। কিন্তু গ্রন্থটি প্রকাশিত হয় ১৭৪৩ খ্রিস্টাব্দে পর্তুগালের রাজধানী লিবসন থেকে। এই গ্রন্থটি রোমান হরফে মুদ্রিত, কারণ সেই সময় বাংলা হরফ ছিল না। এই ব্যাকরণ গ্রন্থটি প্রাচীনতম বাংলা ব্যাকরণ হিসেবে বিবেচিত। তবে এই গ্রন্থটি মূলত একখানি অভিধান।

এই গ্রন্থের অংশ বিশেষ সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায় ১৯৩১ খ্রিষ্টাব্দে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশ করেন।

 

            বাংলা ভাষার প্রথম আদর্শ ব্যাকরণ রচনা করেন ব্রাসি হ্যালহেড। তার রচিত গ্রন্থটির নাম "A Grammar of Bengal Language". গ্রন্থটি প্রকাশিত হয় ১৭৭৮ খ্রিস্টাব্দে। তবে তিনি তাঁর এই বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থটি ইংরেজি ভাষায় রচনা করেন। গ্রন্থটি ইংরেজি ভাষায় রচিত হলেও, এতে অনেক অক্ষর, শব্দ, বাক্য, পদ্যাংশ ও শ্লোক বাংলা হরফে ছাপা হয়েছিল। কয়েকটি জায়গায় ফরাসি অক্ষরও ছিল। এই গ্রন্থের অংশবিশেষ বাংলায় চার্লস উইকিনসের হুগলির মুদ্রণ যন্ত্র থেকে মুদ্রিত।

 

            বাঙালির রচিত প্রথম বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থটির নাম "গৌড়ীয় ব্যাকরণ"। গ্রন্থটি রচনা করেন রাজা রামমোহন রায়। ১৮২৬ খ্রিস্টাব্দে স্কুল সোসাইটির অনুরোধে তিনি ইংরেজিতে বাংলা ব্যাকরণ "Benglee Grammar in the English Language" রচনা করেছিলেন। পরে ১৮৩৩ খ্রিস্টাব্দে গ্রন্থটি অনুবাদ করে নাম দেন "গৌড়ীয় ব্যাকরণ"। ১৮৩৩ খ্রিস্টাব্দে অনূদিত বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ "গৌড়ীয় ব্যাকরণ" প্রকাশিত হয়।

"গৌড়ীয় ব্যাকরণ" রাজা রামমোহন রায়ের সর্বশেষ গ্রন্থ। এই গ্রন্থে সর্বমোট ১২ টি অধ্যায় ছিল।



রচয়িতা এবং তাঁদের রচিত বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ:


নিম্নে বিখ্যাত কয়েকটি বাংলা ব্যাকরণ গ্রন্থ লেখকের নামসহ উল্লেখ করা হল -

১) মনোত্রল দ্য আসসুম্পসাঁও - "Vocabulario em Bengalla a portugueze dividido em duas Partes" (১৭৪৩)।

২) ব্রাসি হ্যালহেড - " A Grammar of the Bengal Language" (১৭৭৮)।

৩) এ-আপজন - "ইংরেজি ও বাঙ্গালি বোকেবিলারি" (১৭৯৩)।

৪) মিলার - "The Tutor" (১৭৯৭)।

৫) হেনরি পিটস ফরস্টার - "A Vocabulary in two parts, English and Bangalee and Vice Versa" (১৮০২)।

৬) উইলিয়াম কেরি - "A Grammar of the Bangalee Language" (১৮০১) [১৮৪৬ খ্রিস্টাব্দে জন রবিনসন এই গ্রন্থের বঙ্গানুবাদ প্রকাশ করেন]।

৭) জি. সি. হটন - "Rudiments of Bengali Grammer" (১৮২১)।



আরও পড়ুন - 

বাংলা সাহিত্যে যা কিছু প্রথম



৮) রাজা রামমোহন রায় - "Benglee Grammar in the English Language" (১৮২৬)।

৯) ডানকান ফোর্বস - "A Grammar of the Bengali Language" (১৮৬১)।

১০) জি. এফ. নিকল - "Manual of the Bengali Language comprising a Bengali Grammar and Lessons" (১৮৮৫)।


১১) জন বীমস - "Grammar of the Bengali Language Literary and Colloquial" (১৮৯১)।

১২) রাধাকান্ত দেব - "বাঙ্গালা শিক্ষাগ্রন্থ" (১৮১৮)।

১৩) রেভারেণ্ড জে. সকীথ (সংকলক) - "A Grammar of the Bangalee Language adopted to the young in easy questions and answers" (১৮২০)।

১৪) রাজা রামমোহন রায় - "গৌড়ীয় ব্যাকরণ" (১৮৩৩)।



আরও পড়ুন - 

বাংলা সাহিত্যে উৎসর্গকৃত রচনা (প্রথম পর্ব)



১৫) শ্যামাচরণ সরকার - "বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৮৫২)।

১৬) লোহারাম শিরোরত্ন - "বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৮৬০)।

১৭) কৃষ্ণকিশোর বন্দ্যোপাধ্যায় - "সরল ব্যাকরণ" (১৮৭৭), "বাংলা ব্যাকরণ" (১৮৮০)।

১৮) জয়গোপাল গোস্বামী - "শব্দতত্ত্বকৌমুদী" (১৮৮১)।

১৯) নিত্যানন্দ গোস্বামী - "বঙ্গভাষা ব্যাকরণ" (১৮৮৫)।

২০) বীরেশ্বর পাঁড়ে - "বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৮৯১)।


২১) চিন্তামণি গঙ্গোপাধ্যায় - "বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৮৮১)।

২২) নকুলেশ্বর বিদ্যাভূষণ - "ভাষাবোধ বাংলা ব্যাকরণ" (১৮৯৮)।

২৩) হৃষীকেশ শাস্ত্রী - "বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৯০০)।

২৪) কালীচরণ অধিকারী - "ব্যাকরণ শিক্ষা" (১৮৭৮)।



আরও পড়ুন - 

বাংলা সাহিত্যে ভ্রমণ কাহিনী



২৫) ব্রজকিশোর গুপ্ত - "বঙ্গভাষা ব্যাকরণ" (১৮৪০)।


২৬) উমেশচন্দ্র গুপ্ত - "ব্যাকরণ মঞ্জুষা" (১৮৮০)।

২৭) বিপ্রচরণ চক্রবর্তী - "জ্ঞানশাখা ব্যাকরণ"।

২৮) আনন্দচন্দ্র চক্রবর্তী - "ব্যাকরণ দীধিতি" (১৮৬৭)।

২৯) প্রসন্নচন্দ্র চক্রবর্তী - "সাহিত্য প্রবেশ" (১৮৬৯)।

৩০) নিত্যানন্দ চক্রবর্তী - "ব্যাকরণ প্রবেশ" (১৮৭৫)।


৩১) কালীচরণ চট্টোপাধ্যায় - "সাহিত্য সোপান" (১৮৭৪)।

৩২) গোপালচন্দ্র চূড়ামণি - "ব্যাকরণ সংগ্রহ"।

৩৩) কেদারনাথ তর্করত্ন - "ব্যাকরণ মঞ্জরী" (১৮৬৫)।

৩৪) মধুসূদন তর্কালংকার - "শিশুবোধ ব্যাকরণ" (১৮৬৩)।

৩৫) রামগতি ন্যায়রত্ন - "বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৮৬৪)।


৩৬) কালীপদ বন্দ্যোপাধ্যায় - "বঙ্গভাষার ব্যাকরণ" (১৮৮৪)।

৩৭) রমাপ্রসন্ন বিদ্যারত্ন - "বাংলা ব্যাকরণ" (১৮৭৬)।

৩৮) মৃত্যুঞ্জয় বিদ্যালঙ্কার - "প্রবোধচন্দ্রিকা" (১৮৩৩)।



আরও পড়ুন - 

নকশাল আন্দোলনের পটভূমিতে রচিত বিভিন্ন রচনা



৩৯) রাজেন্দ্রলাল মিত্র - "ব্যাকরণ প্রবেশ" (১৮৬২)।

৪০) মনোমোহন মিত্র - "ব্যাকরণ পরিচয়" (১৮৭৫)।

৪১) রাজকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায় - "প্রথম শিক্ষা বাংলা ব্যাকরণ" (১৮৭২)।

৪২) সুনীতি কুমার চট্টোপাধ্যায় - "ভাষা প্রকাশ বাঙ্গালা ব্যাকরণ" (১৯৩৯)।

৪৩) ড. সুকুমার সেন - "ভাষার ইতিবৃত্ত" (১৯৩৯)।

 

তথ্যঋণ আধুনিক বাংলা সাহিত্যের ইতিহাস (তপন কুমার চট্টোপাধ্যায়)।

প্রকাশক বিকাশ সাধুখাঁ।

প্রকাশক সংস্থাপ্রজ্ঞা বিকাশ।


আরও পড়ুন -


Thank You

For More Update Visit Our Website Regularly:

www.banglasahitto.in 

Contact Us On:

Mail: contact@banglasahitto.in

To join our FB Page - CLICK HERE.

Post a Comment

0 Comments